২০২১-এ কাঁপছিলো সিলেট!

maxresdefault.jpg

‘ফোটে যে ফুল আঁধার রাতে
ঝরে ধুলায় ভোর বেলাতে
আমায় তারা ডাকে সাথে- আয় রে আয়
সজল করুণ নয়ন তোলো, দাও বিদায়…’

গানে গানে কথাগুলো বলেছিলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম। আজকের সূর্যাস্ত যেন এই গানের সঙ্গেই একাকার হয়ে যাবে।

সব বিদায়ের সঙ্গেই লুকিয়ে আছে এমন আনন্দ-বেদনার কাব্য। সেটা বর্ষবিদায়ের বেলায়ও। আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা- সিলেটবাসীর কাছ থেকে বিদায় নেবে ২০২১। আজকের (শুক্রবার- ৩১ ডিসেম্বর) সূর্যাস্ত আরেকটি খ্রিস্টীয় বছরের সমাপ্তির ডাক দেবে। আর আগামীকালের ভোরের সূর্য পৃথিবীর বুকে নিয়ে আসবে আরেকটি নতুন বছর। বলতে হবে- স্বাগত ২০২২!

বিদায়ী দীর্ঘ একটি বছরের বেশিরভাগ সময় সিলেট ছিলো করোনায় কাবু। এ বছর ভয়ঙ্কর ভাইরাস করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখেছে সিলেট। করোনা ছাড়া বছরটি আলোচিত ছিলো ঘন ঘন ভূমিকম্প, সড়ক দুর্ঘটনা, হত্যা ও আত্মহত্যায়। বছরের শেষ সময়ে এসে ২০২১-এর আলোচিত ঘটনার তালিকায় স্থান করে নেয় সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-এর নির্বাচন। তাছাড়া গত বছরের (২০২০-এর) এমসি কলেজ ছাত্রাবাসের ধর্ষণকাণ্ড ও পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হান আহমদ হত্যাকাণ্ডও ছিলো এ বছরজুড়ে আলোচনায়।

করোনায় সিলেটে সর্বোচ্চ মৃত্যু :
বিশ্বকে ধাক্কা দেওয়া কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) সিলেটে ২০২০ সালের ৫ এপ্রিল প্রথম শনাক্ত হলেও এ অঞ্চলকে ঝাঁঝরা করে ২০২১ সালে। এ বছর করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ২২ জনের মৃত্যু দেখে সিলেট। চলতি বছরের ১০ আগস্ট সকাল থেকে ১১ আগস্ট সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ভয়ঙ্কর করোনাভাইরাস সিলেট বিভাগে কাড়ে একে একে ২২টি তাজা প্রাণ। এর আগে একই মাসের বিভিন্ন দিনে করোনায় ২৪ ঘন্টায় যথাক্রমে ১২, ১৪, ১৭, ২০ ও ২১ জন করে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

ভূমিকম্প :
সিলেটে এ বছর করোনার পরেই যে বিষয়টি আলোচিত হয় তা হচ্ছে ‘ভূমিকম্প’। নয়দিনের ব্যবধানে আট দফা ভূমিকম্প হয় সিলেটে। সর্বশেষ গত ৭ জুন সন্ধ্যায় দুই দফা কেঁপে ওঠে সিলেট। ৩ দশমিক ৮ মাত্রার এ ভূমিকম্পে ফাটল দেখা দেয় সিলেট নগরীর বন্দরবাজার এলাকার রাজা জিসি স্কুলের একটি ভবনে।

এর আগে গত ২৯ মে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টার মধ্যে সিলেটে অন্তত পাঁচটি ভূকম্পন অনুভূত হয়। পরদিন ভোরে আবার ভূমিকম্প হয়। যার সবগুলোর উৎপত্তিস্থল ছিলো সিলেটের জৈন্তাপুর এলাকায়। ২৯ ও ৩০ মে ভূমিকম্পের পর নগরীর সুরমা মার্কেট, সিটি সুপার মার্কেট, মধুবন সুপার মার্কেট, সমবায় মার্কেট, মিতালী ম্যানশন ও রাজা ম্যানশন মার্কেট ১০ দিনের জন্য বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করে সিসিক। এছাড়া জিন্দাবাজার এলাকার জেন্টস গ্যালারি নামের একটি দোকান ও পনিটুলার একটি আবাসিক ভবনও ১০ দিনের জন্য বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করা হয়।

সিলেটে দফায় দফায় ভূমিকম্পের পর নগরীর সব বহুতল ভবন তোড়জোড় করে পরীক্ষার উদ্যোগ নেয় সিসিক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কিন্তু বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতায় সে কাজ এখনও শুরুই করা সম্ভব হয়নি। নগরীর ২৫ টি ভবনকে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে রেখেছে সিসিক। কিন্তু সেগুলোতে চলছে স্বাভাবিক কার্যক্রম।

সড়ক দুর্ঘটনা :
বিদায়ী ২০২১ সালে সিলেটে সড়কে ছিলো লাশের মিছিল। প্রায় প্রতি সপ্তাহে সিলেটের কোথাও না কোথাও বড় সড়ক দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যেতো। প্রতি দুর্ঘটনায়ই গেছে এক বা একাধিক প্রাণ। সবচেয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে এ বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি সকালে, সিলেটের দক্ষিণ সুরমার রশিদপুরে। ওইদিন একটিমাত্র দুর্ঘটনায় প্রাণ যায় ৮ জনের। সেদিন সকাল ৭টার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমার রশিদপুরে লন্ডন এক্সপ্রেস ও এনা পরিবহনের দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এই নিহতের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলেই মারা যান সাত জন। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালে আরেকজন মৃত্যুবরণ করেন। নিহতদের মধ্যে ছিলেন সিলেটের উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক আল মাহমুদ সাদ ইমরান খান।

ট্রিপল মার্ডার, ডাবল মার্ডার :
বিদায়ী বছরের মাঝামাঝি সময় সিলেটে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে ট্রিপল মার্ডার। ১৬ জুন সকালে সিলেটের গোয়াইনঘাটের ফতেহপুর ইউনিয়নের বিন্নাকান্দি গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে এক নারী ও তার দুই শিশুসন্তানের গলাকাটা ও কোপানো অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়। এসময় আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ওই নারীর স্বামী হিফজুর রহমানকে। দুদিন পর হিফজুরকে ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় গ্রেফতার দেখানো হয়। পূর্বাপর ঘটনা ও আলামত থেকে পুলিশ নিশ্চিত হয়- হিফজুরই তার স্ত্রী আলেমা বেগম এবং শিশুসন্তান মিজানুর রহমান ও আনিশাকে কুপিয়ে খুন করে। পরে তাকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিলে খুনের কথা স্বীকার করেন হিফজুর। এছাড়াও তার বটির কোপে স্ত্রীর গর্ভে থাকা পাঁচ মাসের সন্তানও মারা যায়।

আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হিফজুর বলেন, ১৫ জুন দিবাগত রাতে ঘুমানোর পর স্বপ্নে দেখেন ঘরের ভেতর অনেক মাছ ঢুকেছে। পরে তিনি স্বপ্নের মধ্যে সেই মাছ কেটে টুকরো টুকরো করেন। পরে হিতাহিত জ্ঞান ফেরার পর বুঝতে পারেন- তিনি স্বপ্ন দেখে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে দা দিয়ে কেটে খুন করে ফেলেছেন। এসময় তার নিজের শরীরেও দা দিয়ে আঘাত করেন হিফজুর।

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার রেশ শেষ হতে না হতেই ৫ দিনের মাথায় (১৯ জুন) ‘জোড়া খুন’র ঘটনা ঘটে সিলেটের ওসমানীনগরে। ঘরের ভেতর থেকে স্কুলশিক্ষিকার গলাকাটা ও গৃহকর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ‘জোড়া খুন’র রহস্য এখনও উদঘাটন হয়নি।

ডাবল আত্মহত্যা :
বিদায়ী বছরে সিলেটে বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে একসঙ্গে দুই বোনের আত্মহত্যা। ২১ সেপ্টেম্বর সকালে নগরীর ৪নং ওয়ার্ডের আম্বরখানা মজুমদারি এলাকায় ৩১নং বাসার ছাদ থেকে রাণী বেগম (৩৮) ও ফাতেমা বেগম (২৭) নামে আপন দুই বোনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার কছে পুলিশ। পরিবারের সদস্যদের দাবি- একটি বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে ঝগড়া করে একসঙ্গে দুই বোন আত্মহত্যা করেন। পুলিশেরও বক্তব্য- এটি আত্মহত্যা। অপরদিকে প্রতিবেশিরা বলেন- এই পরিবারের সকল সদস্যই কিছুটা অপ্রকৃতস্থ, অস্বাভাবিক ও চাপা স্বভাবের। আত্মহত্যাকারী দুই বোন বেশিরভাগ সময় ঘরে দরজা বন্ধ করে ভারতীয় বিভিন্ন সিরিয়াল দেখতেন।

চেম্বার নির্বাচন :
বছরের শেষ সময়ে এসে উত্তাপ ছড়ায় সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের নির্বাচন। ১১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয় ভোটগ্রহণ। এতে দুই প্যানেলে ১১ জন করে মোট ২২ জন পরিচালক নির্বাচিত হন। কিন্তু নির্বাচন পরবর্তী প্রেসিডিয়াম (পরিষদ) গঠন নিয়ে ব্যবসায়ীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। ১৩ নভেম্বর চেম্বারের প্রেসিডিয়াম (পরিষদ) গঠন নিয়ে একাংশের মধ্যে চরম ক্ষোভ দেখা দেয়। ওই দিন রাত ১০টার দিকে ব্যবসায়ীদের দুপক্ষে চরম উত্তেজনা দেখা দিলে চেম্বার কার্যালয় ঘিরে মোতায়েন করা হয় বিপুল সংখ্যক পুলিশ। মধ্যরাতে একপক্ষ প্রেসিডিয়াম (পরিষদ) গঠন প্রক্রিয়া বয়কট করে পরদিন সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বসহ নানা অভিযোগ তুলেন। টানা ৪-৫ দিন এ নিয়ে সিলেটের ব্যবসায়ী মহলে উত্তেজনা বিরাজ করে। বিদ্রোহীপক্ষ আদালত পর্যন্ত যান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আইনি বাধা না থাকায় নতুন কমিটির কাছে গত ২৮ ডিসেম্বর দায়িত্ব হস্তান্তর করে পুরাতন কমিটি।

বিশ’র বিষেও অশান্ত ছিলো ২১ :
চলতি বছরের নানা ঘটনা-দুর্ঘটনা আলোচনায় তো ছিলোই, উপরন্তু এ বছর ২০২০-এর বিষেও ছিলো আক্রান্ত। সিলেটবাসীর কাছে বিশেষভাবে আলোচিত ২০২০ সালে সংঘটিত এমসি কলেজে গণধর্ষণ ও নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে নিহত যুবক রায়হানের ঘটনা ২০২১ সালজুড়েও আলোচনার শীর্ষে ছিলো।

২০২০ সালের শেষদিকের এই দুই অপরাধ ২০২১ সালকেও ম্লান করে দেয়। কারণ সিলেট এমসি কলেজে ছাত্রলীগ কর্তৃক তরুণীকে গণধর্ষণ ও পুলিশ ফাঁড়িতে যুবক রায়হান উদ্দিনকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনার মামলার কার্যক্রম চলেছে বছরজুড়ে। যার কারণে এই দুই ঘটনার ফলোআপ বছরজুড়ে ছিলো গণমাধ্যমের অন্যতম খোরাক।

প্রাপ্তি :
এতকিছুর পরও বিদায়ী বছরটি সিলেটের যোগাযোগ খাতসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুখবর বয়ে এনেছিলো। এ অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক ছয় লেনে উন্নীত করার কাজ শুরু হয়েছে। বহুল কাঙ্ক্ষিত সিলেট-তামাবিল মহাসড়কও উন্নীত হচ্ছে ছয় লেনে। এছাড়াও সিটি করপোরশন এলাকার আয়তন বাড়ার বিষয়টিও ছিলো সিলেটের জন্য একটি বড় প্রাপ্তি।

এর বাইরে বছরের শেষ দিকে এসে সিলেট মহানগর এলাকায় হোল্ডিং ট্যাক্স ও পানির বিল বাড়ানো নিয়ে শোরগোল হয়। গত ৩ মাস ধরে নগরীর বিভিন্ন স্থানে নিম্ন ও মধ্যআয়ের মানুষেরা চালিয়ে আসছেন শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ কর্মসূচি। তবে শেষ পর্যন্ত পানির বিল কমানোর আশ্বাস দিয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com