রাশিয়া-ইউক্রেন বৈঠক: সঙ্কটের সমাধান মিলেনি

131137.jpeg

GOMEL REGION, BELARUS - FEBRUARY 28, 2022: Ukrainian Parliament member Rustem Umerov, Ukraine’s Deputy Prime Minister Mykola Tochytskyi, Ukraine’s Defence Minister Oleksiy Reznikov, Ukrainian Parliament member Davyd Arakhamia, adviser to the head of the Ukrainian Pesidential Office Mykhailo Podoliyak and First Deputy Head of the Ukrainian delegation to the Trilateral Contact Group Andrey Kostin (from R back row) at Russian-Ukrainian talks. On 27 February, an agreement was reached with the Ukrainian side about talks in the Gomel Region of Belarus in connection with the Russian military operation in Ukraine. Early on 24 February, Russia's President Putin announced his decision to launch a special military operation after considering requests from the leaders of the Donetsk People's Republic and Lugansk People's Republic. Alexander Kryazhev/POOL/TASS Áåëîðóññèÿ. Ãîìåëüñêàÿ îáëàñòü. Ïîñîë Ðîññèè â Áåëîðóññèè Áîðèñ Ãðûçëîâ, çàìåñòèòåëü ìèíèñòðà îáîðîíû ÐÔ Àëåêñàíäð Ôîìèí, çàìåñòèòåëü ìèíèñòðà èíîñòðàííûõ äåë ÐÔ Àíäðåé Ðóäåíêî, ïîìîùíèê ïðåçèäåíòà ÐÔ Âëàäèìèð Ìåäèíñêèé, ãëàâà êîìèòåòà Ãîñäóìû ÐÔ ïî ìåæäóíàðîäíûì äåëàì Ëåîíèä Ñëóöêèé, íàðîäíûé äåïóòàò Óêðàèíû Ðóñòåì Óìåðîâ, çàìåñòèòåëü ìèíèñòðà èíîñòðàííûõ äåë Óêðàèíû Íèêîëàé Òî÷èöêèé, ìèíèñòð îáîðîíû Óêðàèíû Àëåêñåé Ðåçíèêîâ, ðóêîâîäèòåëü ôðàêöèè "Ñëóãà íàðîäà" â Âåðõîâíîé ðàäå Óêðàèíû Äàâèä Àðàõàìèÿ, ñîâåòíèê ðóêîâîäèòåëÿ Îôèñà ïðåçèäåíòà Óêðàèíû Ìèõàèë Ïîäîëÿê è ãëàâà äåëåãàöèè Óêðàèíû â Òðåõñòîðîííåé êîíòàêòíîé ãðóïïå Àíäðåé Êîñòèí (ñëåâà íàïðàâî) âî âðåìÿ ðîññèéñêî-óêðàèíñêèõ ïåðåãîâîðîâ. Àëåêñàíäð Êðÿæåâ/POOL/ÒÀÑÑ

রাশিয়া ও ইউক্রেনের প্রতিনিধিরা স্থিতিশীলতা আনতে ও যুদ্ধ থামানোর  উদ্দেশে বেলারুশ সীমান্তে যে বৈঠকে বসেছিলেন সেটি শেষ হয়েছে। খবর বিবিসির।

বেলারুশের গণমাধ্যম বেল্টা নিউজের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দ্বিতীয়বার আলোচনায় বসার জন্য দুই পক্ষই এখন পরামর্শ করতে তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যাবে।

কয়েক দিনের মধ্যেই দুই পক্ষ ফের আলোচনায় বসতে পারে।

এ বৈঠকের আগে শান্তি আলোচনা নিয়ে কেউই খুব বেশি আশাবাদী ছিলেন না। তবে এখন পরিস্থিতি পাল্টে যেতে পারে অথবা রাশিয়া তাদের আক্রমণ বাড়িয়ে দিতে পারে।

এর আগে গণমাধ্যম বিবিসি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল,  দুটি প্রধান দাবি নিয়ে রাশিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করতে গেছেন ইউক্রেনের প্রতিনিধিরা।

সেই দাবিগুলোর প্রথমটি হলো অনতিবিলম্বে যুদ্ধবিরতির চুক্তি করা। দ্বিতীয়টি হলো ইউক্রেন থেকে রাশিয়ার সব সৈন্যকে প্রত্যাহার করে নেওয়া।

তবে ইউক্রেনের এ দাবিগুলোর বিষয়ে রাশিয়া কি জানিয়েছে সে বিষয়ে এখনো কোনো কিছু জানা যায়নি।

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লদমির জেলেনস্কির সঙ্গে আলাদাভাবে ফোনে কথা বলেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

এদিকে এ বৈঠক চলার সময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোর সঙ্গে কথা বলেন রাশিয়ার পুতিন। ফ্রান্সের এলিসি  প্রাসাদ সূত্র জানিয়েছে, পুতিনকে এখনই যুদ্ধ থামানোর ব্যাপার ব্যবস্থা নিতে বলেছেন ম্যাঁক্রো।

এলিসি প্রাসাদ সূত্র আরও জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ম্যাঁক্রো পুতিনকে তিনটি অনুরোধ করেছেন। সেগুলো হলো- বেসামরিক লোকদের উপর হামলা না করা, বেসামরিক স্থাপনা সংরক্ষণ করা ও সেগুলোর উপর কোনো হামলা না করা এবং ইউক্রেনের প্রধান সড়কগুলো বিশেষ করে রাজধানী কিয়েভের দক্ষিণের রাস্তাগুলো নিরাপদভাবে চলাচল করতে কোনো বাধা সৃষ্টি না করা।

আর প্রেসিডেন্ট পুতিন এ তিনটি অনুরোধ রাখার ব্যাপারে ম্যাঁকের কাছে নিজের ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন এবং ম্যাঁক্রোর সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখার ব্যাপারেও কথা দিয়েছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com