নিখোঁজ শিশুর লাশ মিললো বাড়ির পাশের ডোবায়

114429.png

সিলেটের বিয়ানীবাজারে এক শিশু নিঁখোজের ৪২ ঘন্টা পর তার লাশ মিলেছে বাড়ির পাশের ডোবায়। আড়াই বছর বয়সী শিশু ছামি আহমদের বাড়ি পৌর এলাকার শ্রীধরা গ্রামে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাড়ির পাশের ডোবার আবর্জনার মধ্যে ছামির লাশ ভেসে থাকা অবস্থায় দেখতে পান স্বজনরা।

নিহত শিশুর স্বজনরা জানান, ঘরের পেছনের দোলনায় খেলতে গিয়ে বা অন্য কোনভাবে হয়তো ডোবায় পড়ে যায় ছামি। আবর্জনার মধ্যে তলিয়ে যাওয়ায় স্বজনরা তাকে খোঁজে পাননি।

এদিকে বিয়ানীবাজার থানায় আড়াই বছরের শিশু ছামি নিখোঁজের ঘটনায় সোমবার সাধারণ ডায়রি করেন ছামির চাচাতো ভাই ফরহাদ আহমদ তানিম। এরপর আশাপাশে খোঁজ করে তার কোন সন্ধান না পাওয়ায় শেষ পর্যন্ত বাড়ির আশপাশের সাতটি ডোবা-পুকুর সেচ করে তাকে খোঁজা হয়। কোথাও ছামিকে না পাওয়ায় স্বজনরা ধারণা করেছিলেন অন্য কিছুর। বুধবার দুপুরে ঘরের পেছনের ডোবা থেকে ছামির নিথর দেহ ভেসে ওঠে। শিশু ছামি আহমদ শ্রীধরা গ্রামের দর্জি গোষ্ঠীর অধিবাসী শামীম মাহমুদ ও শাবানা বেগম দম্পতির ছেলে।

নিহত ছামীর চাচাত ভাই ফরহাদ আহমদ তানিম বলেন, ছামির পায়ে জুতা থেকে জামা সব ঠিকঠাক ছিল। যেখানে তাকে পাওয়া গেছে এর পাশেই একটি দোলনা ছিল। সবারই ধারণা খেলেত গিয়ে সে কোনভাবে হয়তো ডোবা পড়ে গিয়ে আর উঠতে পারেনি।

বুধবার তার লাশ পাওয়ার পর স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন সম্পন্ন করে।

বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিল্লোল রায় জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ডোবায় পড়ে শিশুটি ডুবে মারা গেছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com