৫০ রান তুলতেই ৪ উইকেট নেই বাংলাদেশের

ওয়েলিংটনে আজ শুক্রবার তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি তামিম ইকবালদের জন্য হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লড়াই। দুই ম্যাচ হারায় আগেই সিরিজ হার নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশের।

আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ৩১৮ রান তুলেছে নিউজিল্যান্ড। এতে জয় তুলে নেওয়ার লক্ষ্যটা বাংলাদেশের জন্য বেশ কঠিন।

আর সেই লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই নাকানিচুবানি খাচ্ছে বাংলাদেশ। শুরুতেই অধিনায়কের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গেছে বাংলাদেশ।

কিউই পেসারে বিধ্বস্ত তামিম, লিটন সৌম্যরা।  দলীয় সংগ্রহ ৫০ রান তুলতেই ৪ উইকেট খু্ঁইয়ে ফেলেছে বাংলাদেশ দল। টপঅর্ডারের ৩ ব্যাটসম্যানই কিউই পেসার ম্যাট হেনরির শিকার।

গত ম্যাচে ৭৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলা বাংলাদেশ অধিনায়ক আজ কিছুই করতে পারেননি।  ৯ বল মোকাবিলা করে মাত্র ১ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন।

নিউজিল্যান্ড সফরে সাকুল্যে তার সংগ্রহ দাঁড়াল মাত্র ৯২ রান। প্রথম ম্যাচে ১৩ ও দ্বিতীয়টিতে ৭৮ রান করেছিলেন টাইগার অধিনায়ক। আজ আর দুই অঙ্কেও যেতে পারেননি তিনি।

দলীয় ১০ রানের মাথায় অধিনায়ক তামিমকে হারায় বাংলাদেশ।  ম্যাট হেনরির একটি লেন্থ বল ডিফেন্ড করতে গিয়ে ল্যাথ্যামের ক্যাচে পরিণত হন তামিম।

এরপর অধিনায়ককে অনুসরণ করেন ওয়ানডাউনে নামা সৌম্য সরকার। তিনি টেকেন মাত্র ৬ বল।  অধিনায়কের মতো ১ এক রানে আউট হন তিনিও।  ম্যাট হেনরির শর্ট লেন্থ বলকে ফাইনলেগে পাঠাতে গিয়ে বোল্টের হাতে তালুবন্দী হন।

দলীয় ১৮ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের।

অপরপ্রান্ত ভালোই খেলে যাচ্ছিলেন ওপেনার লিটন দাস।  তামিম ও সৌম্যর পর উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে স্কোরবোর্ডে ২৬ রান তোলেন।

এর মধ্যে ২১ বলে ২১ রানই তার। কিন্তু এমন সেট হয়েও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি লিটন।  দলীয় ২৬ রানের মাথায় আউট হন লিটন।  স্ট্যাম্পের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া ট্রেন্ট বোল্টের একটি লেন্থ বল খেলতে গিয়ে থার্ডম্যানের হাতে ক্যাচে পরিণত হন লিটন।

লিটন সাজঘরে ফেরার পর জুটি গড়ার চেষ্টা করেন মুশফিক ও মিঠুন।  এ জুটি যোগ করতে পারে মাত্র ২২ রান। দলীয় ৪৮ রানের মাথায় কাইল জেমিসনের বলে স্কয়ার লেগে মিচেল সান্টনারের হাতে ধরা পড়েন মিঠুন।

গত ম্যাচে ৭৩ রান করা মিঠুন আজ করলেন মাত্র ৬ রান। ৩৪ বল মোকাবিলায় এ রান সংগ্রহ করেন তিনি।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ২১.৩ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭২ রান। ১৯ ও ১৫ রানে অপরাজিত যথাক্রমে মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com