বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ হতে পারে আফগানিস্তান

125162.jpeg

আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ হতে পারে আফগানিস্তান। এমন শঙ্কা জেগেছে। আর তাদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন। দেশটিতে নারী ক্রীড়াবিদদের নিষিদ্ধ করার হুমকি দেয়ার প্রেক্ষিতে আইসিসিও দেশটিকে নিষিদ্ধ করবে বলে মত তার। তবে আফগান ক্রিকেট বোর্ড কর্তারা সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।

গভীর অনিশ্চয়তার মুখে আফগানিস্তানের ক্রিকেট। তালেবানদের ক্ষমতা দখলের পর থেকেই যার শুরু। শুরুতে ক্রিকেটের পাশে থাকার ঘোষণা দেয়া তালেবানরা পিছু হটেছে নারীদের খেলার ইস্যুতে। এতেই বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের অংশ নেয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

কারনটা সহজ। আইসিসির নিয়ম বলছে, প্রতিটি পূর্ণ সদস্য দেশের নারী দল থাকা বাধ্যতামূলক। আর আফগানিস্তানে যদি সত্যিই নারী ক্রিকেট দল না থাকে তাহলে তাদের ভবিষ্যত কি? ইতোমধ্যে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানিয়ে দিয়েছে, নারী দল না থাকলে আফগানদের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ আয়োজন করবে না তারা। আর অজিদের টেস্ট অধিনায়ক তো আরো এক ধাপ এগিয়ে।

অস্ট্রেলিয়ার হুঙ্কারে দুশ্চিন্তা বাড়ছে আফগানিস্তান ক্রিকেটে। চিন্তিত ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী।

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী হামিদ শিনওয়ারি জানান, আমরা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াসহ পুরো ক্রিকেট বিশ্বকে আহবান জানাচ্ছি আমোদের জন্য দরজা খোলা রাখুন। আমাদের নির্বাসিত করবেন না। আমাদের সংস্কৃতি ও ধর্মীয় আবহের কারনে শাস্তি দেবেন না।

তবে আফগান ক্রিকেট বোর্ডের অন্তর্বর্তী চেয়ারম্যান আজিজুল্লাহ ফাজলি রেডিও পাশতোকে জানিয়েছেন ২৫ সদস্যের নারী ক্রিকেট দল আছে। এমনকি নারী ক্রিকেট নিয়ে তালিবানদের ইতিবাচক মনোভাবের ইঙ্গিতও দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com