শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেওয়ার প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি

312973.jpeg

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ জন শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। কমিটির দেওয়া প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অভিযোগটি সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য আব্দুল লতিফ।

এর আগে ২৬ সেপ্টেম্বর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ওই বিভাগের চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে। অপমান সহ্য করতে না পেরে নাজমুল হাসান তুহিন নামে এক ছাত্র অতিমাত্রায় ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান।

পরে ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা বর্জন করে একাডেমিক এবং প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এ অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি প্রশাসনিক পদ থেকে পদত্যাগ করেন শিক্ষক ফারহানা। ঘটনার তদন্তে গঠন করা হয় পাঁচ সদস্যের কমিটি। এরপর সিন্ডিকেট সভা শেষে শিক্ষিকা ফারহানাকে সাময়িক বরখাস্ত  করা হয়।

তদন্তের জন্য রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌসকে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কমিটি সরেজমিনে তদন্ত করে গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সোহরাব আলীর কাছে প্রতিবেদন জমা দেয়। আর সেই প্রতিবেদনে উঠে আসে, অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন চুলে কেটে দেন ১৪ জন শিক্ষার্থীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top

প্রধান সম্পাদক: নজরুল ইসলাম শিপার
সম্পাদক:কামরুল হাসান জুলহাস

বক্স ম্যানশন, ৩য় তলা, বন্দর বাজার, সিলেট-৩১০০।
০১৭২০-৪৪৫৯০৮
news.talashbarta@gmail.com